Foto

গরুর মাংসের পুষ্টিগুণ


মুসলমানদের অন্যতম ধর্মীয় উৎসব ঈদুল আজহা মানেই ধুমিয়ে গরু-খাসির মাংস খাওয়ার একটা অভ্যাস দেখা যায়। অনেকেই নিজের ইচ্ছা মতো মাংস খাওয়ায় বিভিন্ন ধরনের শারীরিক সমস্যা দেখা দেয়। গরুর মাংসেও রয়েছে নানা ধরনের প্রয়োজনীয় পুষ্টি উপাদান যা আমাদের শরীরের জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ ।


Hostens.com - A home for your website

তাই অবশ্যই খেতে পারবেন তবে তা পরিমাণ মতো। কোরবানির মাংস সবাই খেতে পারবেন তবে অতিরিক্ত খাওয়া যাবে না।

আসুন জেনে নেই গরুর মাংসের পুষ্টিগুণ:

১. গরু-খাসির মাংসে রয়েছে উন্নত প্রথম শ্রেণির প্রোটিন যা মাংসপেশি গঠনে সহায়তা করে। শরীরের জন্য যে সব অত্যাবশকীয় এমাইনো এসিড প্রয়োজন সবগুলো এমাইনো এসিড পাওয়া যায় গরু-খাসির মাংস থেকে।

২. গরুর মাংসে রয়েছে পর্যাপ্ত আয়রন যা রক্তস্বল্পতা প্রতিরোধে সাহায্য করে এবং সেই সঙ্গে আয়রনের ঘাটতি পূরণ করে থাকে।

৩. বিভিন্ন ধরনের ভিটামিনে খুব ভালো উৎস গরুর মাংস। ভিটামিন বি১২, বি৬ রয়েছে গরুর মাংসে যা নার্ভ সিস্টেমকে ভালো রাখে।

৪. আয়রনের পাশাপাশি গরুর মাংসে রয়েছে আরও কিছু প্রয়োজনীয় মিনারেলস। যেমন : জিংক, সেলেনিয়াম, সোডিয়াম, পটাশিয়াম ও ম্যাগনেসিয়াম। যা শরীরের মিনারেলস-এর ঘাটতি পূরণের পাশাপাশি শরীরের কোষকে ভালো রাখে ও রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায়।

Facebook Comments