বগুড়ায়-বাড়ি-থেকে-ডেকে-যুবককে-ছুরিকাঘাতে-হত্যা

বগুড়ায় বাড়ি থেকে ডেকে যুবককে ছুরিকাঘাতে হত্যা


বগুড়ায় এক যুবককে মোবাইল ফোনে বাড়ি থেকে ডেকে নিয়ে উপর্যুপরি ছুরিকাঘাতে হত্যা করা হয়েছে। নিহতের নাম উজ্জ্বল হোসেন (২৫)।


Hostens.com - A home for your website

সোমবার রাতে শহরতলির পালশা তালপুকুর এলাকায় ছুরিকাঘাতের পর হাসপাতালে তার মৃত্যু হয়।

পুলিশ জিজ্ঞাসাবাদের জন্য গোদারপাড়া এলাকার আরিফ নামে একজন থানায় এনেছে।

উজ্জ্বল হোসেন শহরের নিশিন্দারা ধমকপাড়া মোহাম্মদ আলীর ছেলে। তিনি বাস-ট্রাকে অনিয়মিত হেলপারের পাশাপাশি মাদক সেবন ও ব্যবসার সঙ্গে জড়িত ছিলেন। তার বিরুদ্ধে সদর থানায় অস্ত্র আইন ও ডাকাতি প্রস্তুতির একাধিক মামলা রয়েছে।

উপশহর পুলিশ ফাঁড়ির এসআই আবদুল গফুর জানান, মাদকের কারণে পরিবার থেকে তাকে পুলিশে দেয়া হয়েছিল। প্রায় দুই মাস আগে তিনি জেল থেকে জামিনে ছাড়া পান।

পরিবারের বরাত দিয়ে উপশহর পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ ইন্সপেক্টর আম্বার হোসেন জানান, সোমবার রাত সাড়ে ১০টার দিকে মোবাইল ফোন পেয়ে উজ্জ্বল বাড়ি থেকে বের হন। তিনি পালশা তালপুকুর এলাকায় গেলে দুর্বৃত্তরা তার শরীরে বেশ কয়েকটি ছুরিকাঘাত করে পালিয়ে যায়। স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে পাঠান।

তবে ধারণা করা হচ্ছে, মাদক সেবন বা মাদক বিক্রির টাকা নিয়ে বিরোধে অন্য মাদক বিক্রেতাদের হাতে খুন হয়েছেন উজ্জ্বল। জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আরিফ নামে এক যুবককে আটক করা হয়েছে।

ছিলিমপুর মেডিকেল ফাঁড়ির এসআই আবদুল আজিজ মণ্ডল জানান, রাত ১১টার দিকে উজ্জ্বলকে বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ (শজিমেক) হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে রাত ১২টার দিকে তার মৃত্যু হয়েছে। তার শরীরে ৭-৮টি স্থানে ছুরিকাঘাত করা হয়। মরদেহ ওই হাসপাতাল মর্গে রাখা হয়েছে।

Facebook Comments