ভোটে অংশ নিতে পারবেন কি না, তা জানতে বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার অপেক্ষা বাড়ল। নিম্ন আদালতে দুটি মামলায় দণ্ডপ্রাপ্ত হওয়ায় তাঁর মনোনয়নপত্র অবৈধ ঘোষণা করে রিটার্নিং কর্মকর্তাদের সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে করা আপিল

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে নিজ দলের যারা বিভিন্ন আসনে স্বতন্ত্র প্রার্থী হয়েছেন, তাঁদের প্রার্থিতা প্রত্যাহারে ‘বিশেষ অনুরোধ’ জানিয়েছেন আওয়ামী লীগের সভানেত্রী শেখ হাসিনা। এক চিঠিতে দলের বিদ্রোহী প্রার্থীদের

আগামী নির্বাচনে জয়ী হয়ে ক্ষমতায় টিকে থাকতে পারলে দেশের অর্থনৈতিক গতি অব্যাহত রেখে প্রবৃদ্ধি ১০ শতাংশে উন্নীত করার লক্ষ্য ঠিক করে রেখেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। একাদশ সংসদ নির্বাচনের আগে জাপানের অর্থনীতি বিষয়ক

রিটার্নিং কর্মকর্তার বাছাইয়ে যাদের মনোনয়নপত্র বাতিল হয়েছিল, তাদের আপিল শুনানির দ্বিতীয় দিনে আরও ৭৮জন প্রার্থিতা ফিরে পেয়েছেন। এই সিদ্ধান্তের ফলে আগামী ৩০ ডিসেম্বর অনুষ্ঠেয় একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে অংশ নিতে তাদের

২০০১ সালের নির্বাচনে বিএনপি-জামায়াত জোটের কাছে আওয়ামী লীগের পরাজয়ের জন্য বিদেশিদের হাত ছিল মন্তব্য করে শেখ হাসিনা বলেছেন, ওই নির্বাচনের ফল আগেই ঠিক ছিল, যার দালিলিক প্রমাণ তিনি পেয়েছেন। বঙ্গবন্ধু হত্যাকাণ্ডের ২১ বছর

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বিএনপির প্রার্থী হিসেবে ২০৬ জনকে চূড়ান্ত মনোনয়ন দিয়েছে বিএনপি। শুক্রবার গুলশানে বিএনপি চেয়ারপারসনের কার্যালয়ে দলের মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর এ প্রার্থী তালিকা ঘোষণা করেন। তিনি

বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া, ব্যারিস্টার নাজমুল হুদা, কাদের সিদ্দিকীর মনোনয়নপত্র বাতিলের বিরুদ্ধে আপিল শুনানি হবে শনিবার। তাতে রিটার্নিং অফিসারের সিদ্ধান্ত বহাল থাকবে নাকি তাদের মনোনয়নপত্র বৈধ ঘোষণা হবে, তা

সর্বাধিক পঠিত সংবাদগুলো